1. Hi Guest Pls Attention! Kazirhut Accepts Only Benglali (বাংলা) & English Language On this board. If u write something with other language, you will be direct banned!

    আপনার জন্য kazirhut.com এর বিশেষ উপহার :

    যেকোন সফটওয়্যারের ফুল ভার্সনের জন্য Software Request Center এ রিকোয়েস্ট করুন।

    Discover Your Ebook From Our Huge Collection E-Books | বাংলা ইবুক (Bengali Ebook)

আংটি বাবা

kazirhut's Blog entry posted by Zahir, Dec 2, 2012.

গত শুক্রবার জুমার নামাজ পড়ার জন্য রাজধানী ঢাকার সন্নিকটে মিরপুরে হযরত শাহ আলী রহঃ মাজার মসজিদ এ গেলাম। তিন তলা মসজিদের দোতলায় ঠাই পেলাম। ফ্লোরে পলিসড টাইলস লাগানো কয়েক দিন আগেই শেষ হয়েছে। শীত ও টাইলস এর গুনে ফ্লোর যে এতো পরিমান ঠান্ডা হয়ে আছে জানলে নীচতলায় গুঁতোগুঁতি করে জায়গা করে নিতাম, দোতলায় উঠতাম না। বসতেই পাছাটা ধরে এলো। একসময় ঠান্ডায় মনে হল শরীরের এই অংশটা বুঝি আমার নয়। একবার ডানপাশ আরেকবার বাম পাশ করে করে করে শীতাতপের নিয়ন্ত্রন করার চেষ্টা করে গেলাম। বয়ান ও খুতবার পর খতিব সাহেব নামাজের জন্য দাড়ালে জানটা ফিরে এলো। হাফ ছাড়লাম। নামাজ শেষে সারিবদ্ধ হয়ে নিচে নেমে এলাম। অনেক বড় মসজিদ, লোক ও হয় মেলা। অনেক দূর দুরান্ত থেকে মুসুল্লিগন মিরপুর মাজার মসজিদে বিশেষ করে জুমার নামাজ আদায় করতে আসেন। উদ্দেশ্য নামাজ শেষে মহান অলীর রওজা জেয়ারত করা। এক কাজে দুই কাজ হয়ে যায়। মসজিদ ও মাজার পাশাপাশি। মসজিদ থেকে বেরিয়ে মাজার জিয়ারতের জন্য দাড়িয়ে গেলাম। কিছু দোয়া কালাম পরে বাসার দিকে রওয়ানা দিলাম। মাজারের পূর্বদিকের মুল ফটকের বাইরে বাম পাশে ছোট্ট একটা জটলা পেলাম। এমন ছোট খাট জটলা মাজারের শোভা বলা যায়। প্রায়ই দেখি। ছোট সময়ে এমন জটলা দেখলে ভিতরে ঢুকে পরতাম। এখন বড় হয়েছি, এমন জটলায় দাড়াতে লজ্জা বোধ হয়, দাড়াই না। ঐ দিন কেনো যেনো মনে টানল ভিতরে কি দেখার জন্য। উকি দিলাম। আমার সামনে কয়েক সারি লোক। খুব সহজে দেখা যাচ্ছে না। দাড়িয়ে চেষ্টা করছি দেখতে জটলার ভিতরে কি আছে। এক জনকে কাটিয়ে একটু সামনে গেলাম। হালকা দেখা যায়। না আরও সামনে যেতে হবে। আরেকটু গুঁতাগুঁতি করে সামনে যাওয়ার চেষ্টা করলাম। এখন আমার সামনে শুধু একজন দাড়িয়ে। ভিতরটা স্পষ্ট দেখতে পাচ্ছি। গোল হয়ে দাঁড়িয়ে থাকা জটলার ভিতর একজন পাগল কিসিমের লোক বসা। তার পাশে কিছু ভক্ত অত্যন্ত আদবের সাথে বসে পাগলের দিকে চেয়ে আছে। এ জীবনে অনেক পাগল দেখার সুযোগ হয়েছে কিন্তু এমন পাগল দেখি নাই। বর্ণনা দিয়ে কতটুকু বুঝাতে পারবো জানি না। পাগলের শরীরে কোট জাতীয় একটা কুর্তা, বিশ্রী রকম ময়লা। দুই হাতের কব্জিতে অসংখ্য মালা। মজার বিষয় হল এই পাগলের হাতের দশ আঙ্গুলের সবটা জুড়ে বিভিন্ন রকম আংটি দিয়ে মুড়ানো। মনে হল আংটি গুলো সুতা দিয়া জড়ানো। হাত থেকে খুলে পরছে না। ডান হাতের ৩টা আঙ্গুলের ভিতর কয়েকতা আংটি গেঁথে বসে আছে, আঙ্গুলগুলো ফুলে সংক্রমিত অবস্থায় দেখলাম। মাছি ভনভন করেছে আঙ্গুলগুলোর উপর। বিখাউজ টাইপের অবস্থা। যে কোন লোকের দয়া আসবে আঙ্গুলগুলোর দিকে তাকালে। কিন্তু পাগল নির্বিকার, যেনো কিছুই হয় নি। পাগলের সামনে বসা একজন শিক্ষিত গোছের লোক বসে বিরিয়ানী খাচ্ছে আর পাগলার সাথে গুনগুন করে কথা বলছে আর মুচকি মুচকি হাসছে। কিছুক্ষণ পর পাগলের জন্য একটা পান আনা হল। সামনের লোকটি পানটি মুচরিয়ে পাগলের মুখে তুলে দিল। চুনের কাগজটা পাগল হাতে নিল। ডান হাতের তর্জনীর দুটো আংটি খুলে আঙ্গুলে চুন নেয়ার চেষ্টা করার সময় হাতের নখের অবস্থা দেখা গেল। নখের ভিতর আলকাতরার মত কালো ময়লা ঢুকে আছে। ঐ আঙ্গুল দিয়ে চুন নিয়ে মুখে দিচ্ছে। হয়ত এতে বিস্ময়ের কিছু নেই কিন্তু আমার কেন যেনো খারাপ লাগছিলো। আমি নিজেই এই পাগলের নাম ঠিক করেছি আংটি বাবা!

আমি ভীরের ভিতর থেকে লুকিয়ে মোবাইল দিয়ে কয়েকটা ছবি তোলার চেষ্টা করেছি।
দেখুন-

[​IMG]

[​IMG]

[​IMG]

[​IMG]
--A.R--, হাসান and dipu like this.
Zahir

About the Author

কাজীর হাটের সেবক
  1. মনিপুরি
    এই ধরনের আধ্যাত্মিক গুরুর বিষয়ে আমার মতবাদ অনেক নেগেটিভ । হাজারো ভন্দের ভিড়ে সাধু মিলা দুষ্কর ।
  2. JIKO RAJ
    আংটি গুলি না দেখতে পাওয়ার আফসোস রইল
  3. --A.R--
    মাম্মা কি পরে সুন্নত নামাজ পড়োছিলেন!! যেই ঠান্ডার কথা হুনাইলেন...

    বেটার আংটি গুলি দেখতে পাইলাম না। ক্যামেরার রেজুলেসন কম থাকার কারনে। আপনের এক খানা ডিজিটাল ক্যামেরা দরকার মামা। তারাতারি কিন্না ফালান।
    পানের চুনের মজা আপনের চাইতে আর কে ভাল জানে!!
    আংটি বাবার চাইতে ঐ শিক্ষীত লোকের কথা শুইন্না বেশি মজা পাইলাম।
    জয় হো আংটি বাবা... খেকজ
  4. Yuvrajj
    আমাকে ফিজিক্যাল ভয় না দেখানো পর্যন্ত আমি এই সব পাগল ছাগল 'বিশ্বাস' করি না
    হাহ হাহ হা
    তবে সাথে দল বল থাকলে আলাদা কথা
    কাজী মামাকে দল বলের কেউ ছবি তুলতে দেখলেই খবর করে দিত!
    Admin likes this.
  5. ~GURU~
    এইসব বাবাগো ঠেলায় আজ মুসলমানদের করুণ অবস্থা...যত্তসব ।
    Admin likes this.
  6. captcha
    ঢাকার হাই কোর্টের মাজারে এমন কিছু উদ্ভট টাইপের লোক দেখেছি। তাদের চতুরপাশে বেশ পোশাকি টাইপের লোকজন বসে খায় খাতির করে।
    ভাবটা এমন এমন যে, পাগলা বাবা অনেক কামেল লোক ,-'দর্শক আপনি দূরে না থেকে কাছে আসুন, বাবার কাছ থেকে ফায়দা নিন।
    এদের আসল চরিত্র উন্মোচন করা উচিত।
    Admin likes this.
  7. Zahir
    আসলে একটু ভয়ে ভয়ে ছবিগুলো তুলেছি। বিশেষ করে আংটি বাবার অগোচরে। শুনা যায় এই ধরনের পাগলের কাছে পালা জ্বিন থাকে। যারা ইচ্ছা করলে যে কারো ক্ষতি করার ক্ষমতা রাখে। এমন একটু ভয় ছিল দিলে । আমার পাশের লোকজন ছবি তুলতে দেখেছে। ধন্যবাদ মনের খেদ প্রকাশের জন্য।
    Yuvrajj likes this.
  8. হাসান
    একটা ব্যাপার ঠিক মেনে নিতে সমস্যা হচ্ছে । না জানিয়ে ছবি তোলার ব্যাপারটা । এটা অন্যায় ।
    কাজী মামা মনের কথাটা অকপটে বলে গেলাম,আবার গোস্বা বা মনোকষ্ট নিয়েন নাগো মামা ।।
  9. mizansharif
    ভন্ডের ছড়াছড়ি।আল্লাহ আমাদের হেফাজত করুন।
    Admin likes this.
  10. passionboy
    কি আর বলব, আমাদের দেশের অন্ধভক্ত মানুষদের ধোকা দিয়ে তারা সর্বস্ব লুটে নিচ্ছে। আর এরকম হাজারো তথাকথিত বাবা টাকার পাহাড় গড়ে তুলছে।
    আর এসব কারণে আসল নক্ল কে তা বুঝা খুবই কষ্টকর
    Admin likes this.