1. Hi Guest
    Pls Attention! Kazirhut Accepts Only Benglali (বাংলা) & English Language On this board. If u write something with other language, you will be direct banned!

    আপনার জন্য kazirhut.com এর বিশেষ উপহার :

    যেকোন সফটওয়্যারের ফুল ভার্সনের জন্য Software Request Center এ রিকোয়েস্ট করুন।

    Discover Your Ebook From Our Online Library E-Books | বাংলা ইবুক (Bengali Ebook)

Info ইউটিউবের কিছু অজানা নতুন নিয়ম-কানুন জেনে নিন

Discussion in 'Outsource! Blogging! SEO' started by kazi sifat, Jan 27, 2018. Replies: 1 | Views: 211

  1. kazi sifat
    Offline

    kazi sifat Regular Member Member

    Joined:
    Apr 13, 2014
    Messages:
    862
    Likes Received:
    163
    Gender:
    Male
    Location:
    mirpur,dhaka
    Reputation:
    254
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    ইউটিউবের কিছু অজানা নতুন নিয়ম-কানুন:
    ------------------------------------------------------
    ফেসবুক গ্রুপে গ্রুপে প্রায়ই পোষ্ট পাওয়া যায় যে, একটি ফেসবুক গ্রুপ বানিয়ে একে অপরের ভিডিও দেখে বা সাবস্ক্রাইব করে মনিটাইজেশনের শর্ত পূরণ করে অর্থ উপার্জন শুরু করবেন। ভাবনাটি মন্দ নয়, তবে তা অনেক পুরোনো, ইউটিউব তথা প্রযুক্তি প্রতিনিয়ত পাল্টাচ্ছে, নিয়ম-কানুন হয়ে যাচ্ছে কঠোর থেকে কঠোরতম। আমরা হয়তো ধোঁকা দেয়ার ফন্দি আঁটছি কিন্তু ইউটিউব যে আরো কিছু ফাঁদ পেতে রেখেছে তা হয়তো অনেকেরই জানা নেই।

    [​IMG]

    ইউটিউবে এখন অর্থ উপাজর্ন করতে হলে যে শর্তগুলো পুরণ করতে হবে তার মধ্যে আমরা শুধুমাত্র দুটিই বেশী জানি, একটি হচ্ছে 1000 সাবস্ক্রাইব এবং অপরটি হচ্ছে 4000 ঘন্টা। কিন্তু আরো কিছু শর্ত ইউটিউব দিয়ে রেখেছে যা আমরা লক্ষ্য করিনি। আজ তাই অপর শর্তগুলো নিয়ে আলোকপাত করবো। প্রথমেই ইউটিউবে অফিশিয়াল পেজে কি বলা আছে তা জেনে নিন। “Instead of basing acceptance purely on views, we want to take channel size, audience engagement, and creator behavior into consideration to determine eligibility for ads.”

    (১) চ্যানেলের সাইজ (channel size):
    আগে যেখানে শুধুমাত্র দশ হাজার ভিউ হলেই মনিটাইজেশন পাওয়া সম্ভব হতো এখন তা আর হচ্ছেনা। আপনার চ্যানেল যদি যথেষ্ট বড় না হয় তাহলে তারা বিজ্ঞাপণ দেবেনা। কিন্তু কতোটা বড় হতে হবে তা কিছু উল্লেখ করেনি তাই কিছুটা ধোঁয়াশা থেকেই যায়, তদুপরি এতটুকু বোঝা যায় যে তারা যে শর্তের কথা বলে রেখেছে তা শুধুমাত্র একটি সর্বনিম্ন সীমারেখা মানে 1000 সাবস্ক্রাইবারই শেষ কথা নয়। এই 1000 সাবস্ক্রাইবার সীমারেখায়ই যে আপনার উপার্জনের পথ খুলে দেবে তা নিশ্চিত করেনা। অন্যভাবে বলতে গেলে যাদের চ্যানেল যতোটা বড় করে নিয়ে আবেদন করবেন তাদের জন্য সুযোগ ততটাই বাড়বে। তাই যারা শুধুমাত্র মনিটাইজেশন আবেদন এর যোগ্যতা অর্জন করার জন্য বিভিন্ন অসদুপায়ে 1000 সাবস্ক্রাইবার তৈরী করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য একটি পরিষ্কার বার্তা ইউটিউব এখানে দিয়ে রেখেছে।

    (২) দর্শক কি ভাবছে আপনার চ্যানেলের বিষয়ে (audience engagement):
    আরেকটি ভালো বার্তা দিয়ে রেখেছে ইউটিউব, যে আগে অডিয়েন্স এনগেজমেন্ট বিষয়টি শুধুমাত্র র‌্যাংকিং এর জন্য প্রভাবক হিসেবে কাজ করলেও এখন থেকে দর্শকের প্রতিক্রিয়া আপনার বিজ্ঞাপণের জন্য একটি বড় বিষয় হয়ে দাড়াবে। মুলত: স্কিপেবল এড ভিডিওর প্রথম দিকে আসতো তাই বাজে কোন কনটেন্ট হলেও প্রথমে বিজ্ঞাপণ দেখে তারপর কনটেন্ট দেখা যেতো যা দর্শকদের চরম বিরক্তির কারণ ছিলো। তাই দর্শক বান্ধব করতে এখন থেকে ইউটিউব বিজ্ঞাপণও নিয়ন্ত্রণ করবে। দর্শক যদি বাউন্স ব্যাক করে অর্থাৎ ঢুকেই বের হয়ে যায় এবং ভিউ এর তুলনায় কমেন্টস, লাইক, ডিসলাইক না থাকে তাহলে আপনার মনিটাইজেশন অন হওয়ার সম্ভাবনা কম। যারা অসদুপায়ে 4000 ঘন্টার বাধা পার হতে চাচ্ছেন তারা একটু ভেবে নিবেন, যে ফেসবুকে একটি গ্রুপ বানিয়ে প্রত্যেকে প্রত্যেকের ভিডিও দেখলেও আদৌ ইউটিউবের শর্ত পুরণ হবে কিনা!

    (৩) ক্রিয়েটরের আচার-ব্যবহার (creator behavior):
    এই অংশটির ব্যখ্যা করা তুলনামূলক জটিল। তবে যেহেতু ‘ক্রিয়েটর’ শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে তাই ধরে নেয়া যায় তারা ইউটিউবারের ব্যক্তিগত আচার-আচরণের কথাই বলেছে। অর্থাৎ ভালো ক্রিয়েটরের কাছ থেকে ভালো কনটেন্ট আসবে এটাই তারা যাচাই করবে। আমার ধারণা ভুল না হলে, সম্ভবত ইউটিউব কমিউনিটি পছন্দ করেনা এমন কনটেন্ট আর রাখতে দেবেনা। যেমন দেবর-ভাবী, হোম টিউটর এ ধরণের অশ্লীল কনটেন্ট গুলো। একটা সময় গেছে যখন চারহাজার টাকা দামের একটা মোবাইল দিয়ে খুব বাজে ভাবে ধারণ করেই কোন একটা চ্যানেলের মধ্যে পুশ করেই বিজ্ঞাপণ পাওয়া যেতো এখন আর তা হবেনা বলে আমার ধারণা। এখন শুধুমাত্রই কোয়ালিটি কাজগুলোতেই বিজ্ঞাপন পাওয়া যাবে। যারা অসদুপায়ে শর্ত পূরণ করে মনিটাইজেশন অন করতে চাচ্ছে তাদের জন্য আরো একটি বার্তা এখানে রয়েছে যে, শুধুমাত্র মনিটাইজেশন এর শর্ত পূরণই শেষ কথা নয় এরপর আপনার ভিডিওর কোয়ালিটিও যাচাই বাছাই করা হবে।

    (৪) ম্যানুয়াল রিভিউ বা মানব কর্মী দ্বারা যাচাই বাছাই:
    এ সম্পর্কে ইউটিউব একটি অফিশিয়াল বক্তব্য দিয়েছে "the channels included in Google Preferred will be manually reviewed and ads will only run on videos rubel that have been verified to meet our ad-friendly guidelines." অর্থাৎ এখন থেকে ভিডিওর গুণগত মান কোন মানব কর্মী দিয়ে যাচাই বাছাই করে তারপর বিজ্ঞাপণ দেয়া হবে। শুধু ভিডিও তৈরী করলেই হবেনা তাতে বিজ্ঞাপণ পাওয়ার জন্য বিজ্ঞাপণ বান্ধব উপায়ে তৈরী করতে হবে। কোয়ালিটি সম্পন্ন নয় এমন কোন কিছু দিয়ে ইউটিউবে আর টেকা যাবেনা। এক কথায় ইউটিউবের জন্য ভিডিও বানাতে গেলে দুটি বিষয়ই এখন মাথায় রাখতে হবে, কোয়ালিটি অপরটি কমিউনিটি। যারা শুধুমাত্র মনিটাইজেশন নিয়ে চিন্তিত তারা এই ধাপগুলো কিভাবে পেরোবেন সে চিন্তাও মাথায় রাখা উচিত।

    বর্তমান যে অবস্থা দাড়িয়েছে তাতে শুধুমাত্র সাবস্ক্রাইবার আর ঘন্টার কথা চিন্তা করেই অনেকের ঘুম হারাম হয়ে গেছে। কিন্তু উপরে উল্লেখিত বিষয়গুলো কখনো হয়তো মাথায় আসেনি বা আসলেও গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন নি। ভাবছেন কোনভাবে মনিটাইজেশনটা আগে অন করি পরেরটা পরে দেখা যাবে।

    ব্যাপারটা মনে হয় এখন আর সে পর্যায়ে নেই। অন্যান্য ইউটিউব এক্সপার্টদের ব্লগ ঘুরে যতটা বুঝতে পারলাম ইউটিউব এখন একটি চরম প্রফেশনালদের জায়গা হয়ে উঠবে, অন্যরাও থাকবে কিন্তু অর্থকড়ি শুধুমাত্র ক্রিয়েটিভদের জন্য। তাই ইউটিউবে আসার জন্য আপনাকে কয়েকটি জায়গা এখন নিশ্চিত করতে হবে, প্রথমত: কোন নির্দিষ্ট কাজের প্রতি পাগলের মতো ভালোবাসা (যারা নিশ খুজে বেড়ান তাদের জন্য সমবেদনা), যে সম্পর্কে আপনি অগাধ জ্ঞান রাখে বা আপনি চরম মাত্রায় দক্ষ, এরপর লাগবে কম্পিউটার-ইন্টারনেট, অডিও-ভিডিও এডিটিং, গ্রাফিক্স সম্পর্কে ধারণা, পর্যবেক্ষণের চূড়ান্ত ক্ষমতা, সবশেষে আপনার প্রয়োজন পড়বে ইংরেজী পড়ার অভ্যেস। আমার কথাগুলো কেউ অনুৎসাহিত করার জন্য ভেবে না নিয়ে বরং বাস্তবতার ভিত্তিতে চিন্তা করুন। এই মাত্র যে বিষয়গুলোর যে কোন একটিরও যদি ঘাটতি থাকে তবে আপনার সময় নষ্ট না করে অন্য কোথাও তা ব্যয় করুন।

    সবসহ ইউটিউব যে সব নিয়ম-কানুন বানিয়ে রেখেছে তা আপাতদৃষ্টে অতোটা কঠিন না মনে হলেও আসলেই তা যথেষ্ট শক্ত।

    যারা অসদুপায়ে সাবস্ক্রাইবার, ভিউ, কনটেন্ট নিয়ে কাজ করতে চাচ্ছেন বা আগে করে সফলতা পেয়েছেন, তারাও এখন থেকে সতর্ক হয়ে সময় ও মেধা অন্য কোন খাতে লাগালে উপকৃত হবেন। যারা শুধুমাত্র 1000 সাব আর 4000 ঘন্টা ভিউ নিয়েই মাথা খারাপ হয়ে যাচ্ছেন আর ভাবছেন কবে মনিটাইজেশন অন হবে, প্রতিনিয়ত গ্রুপে পোষ্ট দিচ্ছেন তারাও নতুন করে চিন্তা শুরু করুন কনটেন্ট নিয়ে। ইউটিউব এখন একটি প্রফেশনাল প্লাটফরম, যেখানে প্রফেশনালরা তাদের শ্রম, মেধা ও অর্থ বিনিয়োগ করতে দ্বিধা বোধ করবেন না।

    সেদিন খুব বেশী দুরে নয়। এ ধরণের কাটখোট্টা পোষ্ট দিতে গিয়ে আমার ব্যক্তিগতভাবে ভালো লাগেনি কারণ পোষ্টটি একটি নিরুৎসাহিতামুলক পোষ্ট বলে অনেকের ধারণা হবে বলে।

    কিন্তু আমি শুধুমাত্র যারা অসদুপায় অবলম্বন করে ইউটিউবিং করবেন বলে ভাবছেন তাদের সতকর্তার জন্য এই অপ্রিয় সত্যগুলো বলতে বাধ্য হলাম। কাজ পাগলাদের জন্য এই পোষ্ট নয়। যারা কাজের মানুষ তাদের জন্য সামনের দিনগুলো সকালের সোনালী রোদের মতোই উজ্জল।

    হ্যাপি ইউটিউবিং....

    (collected)
     
    • Like Like x 1
    • Informative Informative x 1
  2. captcha
    Offline

    captcha Welknown Member Member

    Joined:
    Aug 7, 2012
    Messages:
    6,035
    Likes Received:
    1,838
    Location:
    বাংলাদেশ
    Reputation:
    1,203
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    "আমি শুধুমাত্র যারা অসদুপায় অবলম্বন করে ইউটিউবিং করবেন বলে ভাবছেন তাদের সতকর্তার জন্য এই অপ্রিয় সত্যগুলো বলতে বাধ্য হলাম। কাজ পাগলাদের জন্য এই পোষ্ট নয়। যারা কাজের মানুষ তাদের জন্য সামনের দিনগুলো সকালের সোনালী রোদের মতোই উজ্জল।"
    অসাম লিখেছেন। ধন্যবাদ।
     
    • Like Like x 1

Pls Share This Page:

Users Viewing Thread (Users: 0, Guests: 0)