1. Hi Guest
    Pls Attention! Kazirhut Accepts Only Benglali (বাংলা) & English Language On this board. If u write something with other language, you will be direct banned!

    আপনার জন্য kazirhut.com এর বিশেষ উপহার :

    যেকোন সফটওয়্যারের ফুল ভার্সনের জন্য Software Request Center এ রিকোয়েস্ট করুন।

    Discover Your Ebook From Our Online Library E-Books | বাংলা ইবুক (Bengali Ebook)

Funny কাযির অদ্ভূত বিচার!!

Discussion in 'Literature (Bangla)' started by abdullah noman, May 25, 2018. Replies: 3 | Views: 98

  1. abdullah noman
    Offline

    abdullah noman Senior Member Member

    Joined:
    Sep 15, 2013
    Messages:
    1,512
    Likes Received:
    371
    Gender:
    Male
    Location:
    চট্টগ্রাম
    Reputation:
    416
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    অনেক আগের কথা। মিসরে এক কাযি ছিলো। তার বিচারালয়ে একটা মামলা এল। মামলার পেছনের ঘটনা হলো:

    -শহরে একজন দক্ষ বাবুর্চি আছে। ভালো কিছু রান্নার প্রয়োজন হলেই লোকেরা তার দারস্থ হতো। মেহমান-অতীত এলে বাবুর্চিকে দিয়ে কাজ সারতো।

    একজন ইহুদির খায়েশ হলো এই বাবুর্চির হাতে রান্না করা মোরগেরও সুরুয়া খাবে। এটা তার অনেক দিনের বাসনা। একটা মোরগ যোগাড় করে বাবুর্চির বাড়িতে দিয়ে এল। যাওয়ার সময় বলে গেল:

    -আপনি রান্না করে রাখুন। আমি হাতের কাজটা সেরে, কিছুক্ষণ পর এসে নিয়ে যাবো। খরচা-পাতি যা লাগে দিয়ে দেবো।

    বাবুর্চি মনের মাধুরি মিশিয়ে, সেরা ইচিক দানা বিচিক দানা, দানে উপর দানা থেকে বাছাই করা ‘রাঁধুনী’ মশলা দিয়ে মোরগ মুসাল্লাম করলো। চারদিন সুবাসে ম ম করতে লাগলো। মোরগের খোশবাইয়ে ক্ষিধেয় বাবুর্চির পেট মোচড় দিয়ে উঠলো। নোলা টসকে জল গড়াতে লাগলো। বাবুর্চি ভাবলো, একটু চেখেই দেখি না। ময়-মশলা ঠিকমতো হলো কিনা একটু দেখতে হবে না? একটুখানি গোশত মুখে দিয়েই বাবুর্চি সব ভুলে গেলো। গাপুশ-গুপুশ করে পুরো মোরগটাই সাবাড় করে দিল। এবার পেটের উচ্চিংড়েগুলো একটু শান্ত হলো।
    ইহুদি এল। বলল:

    -আমার মোরগটা দেন।

    -মোরগটা জবেহ করার পর উড়ে চলে গেছে।

    -জবেহ করা মোরগ কিভাবে উড়ে পালাতে পারে?

    এ নিয়ে দু’জনের বাকবিত-া-বচসা শুরু হলো। এক পর্যায়ে বাবুর্চির মোরগকাটা বটির আঘাতে ইহুদির একটা চোখ নষ্ট হয়ে গেলো। ইহুদির আকাশফাটা চিৎকারে লোকজন ছুটে এল। বাবুর্চি দৌড়ে পালালো।

    ছুটে পালানোর সময় রাস্তায় এক গর্ভবতী মহিলাকে প্রচ- ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিল। মহিলা সজোরে এক গাছের সাথে বাড়ি খেল। তার গর্ভের সন্তান নষ্ট হয়ে গেলো। মহিলার স্বামী বাবুর্চির পিছু পিছু ছুটলো।

    বাবুর্চি আত্মরক্ষার্থে এক বাড়ির ছাদে চড়ে বসল। ছাদটা ছিলো নরম টালির তৈরী। বাবুর্চির মোরগ তেলতেলে চেকনাই শরীরের ভার সইতে না পেরে, টালির ছাদ হুড়–মুড় করে ধ্বসে পড়লো। বাবুর্চির শরীরের আঘাতে, নিচে থাকা এক বৃদ্ধ লোক নিহত হলো। বৃদ্ধের ছেলেরাও বাবুর্চিকে ধরার জন্য ছুটলো।

    রাস্তা দিয়ে এক লোক গাধা নিয়ে কোথাও যাচ্ছিলো। তার হাতে ছিলো একটা ধারালো চুরি। বাবুর্চি সেটা কেড়ে নিয়ে রাস্তার মধ্যে রুখে দাঁড়ালো। তার পিছু পিছু ধাবমান উত্তেজিত জনতা থমকে গেলো। বাবুর্চি ছুরিটা এলোপাথারি চারদিকে ঘোরাতে শুরু করলো। বাঁইবাঁই করে ঘোরাতে গিয়ে গাধার একটা কান কেটে গেলো।

    এর মধ্যে পুলিশ এসে গেল। এবার লোকেরা মনে সাহস পেয়ে গেলো। তারা একযোগে বাবুর্চির ওপর ঝাঁপিয়ে পড়লো। ধরে কাযির কাছে নিয়ে গেলো।

    বাবুর্চির পরিবারের লোকেরা জানতে পেরে কাযির কাছে গেলো। মোটা অংকের ঘুষ দিয়ে কাযিকে হাত করে ফেললো। কাযি তাদেরকে আশ্বাস দিয়ে বললেন:

    -কোনও চিন্তা নেই। আমি তাকে নির্দোষ প্রমাণ করেই ছাড়বো।

    ইহুদির বিচার:

    পরদিন বিচার বসল। কাযি ইহুদিকে দিয়ে বিচারকার্য শুরু করলেন। পুরো ঘটনা শুনে ইহুদিকে বললেন:

    -আমি তোমার পুরো ঘটনাই শুনেছি। আমি বুঝতে পারছি তুমি প্রকৃতই মাজলুম। তোমার একচোখ নষ্ট হয়ে গেছে। এখন ন্যায় বিচার করতে চাইলে বাবুর্চিরও একটা চোখ তুলে নিতে হয়। কিন্তু কথা হল অমুসলিমের দুই চোখের বিনিময়ে মুসলমানের একটা চোখ তুলতে হয়ে। তাহলে আসো প্রথমেই তোমার আরেকটা চোখ উপড়ে ফেলি।

    ইহুদি ভড়কে গিয়ে বললো:

    -না না, হুযুর আমি বিচার চাই না। থাক বাবুর্চির কোনও দোষ নেই।

    -তাহলে তো বাবুর্চি নির্দোষ।

    পিতার বিচার:

    কাযি এবার মনোযোগ দিলেন বিচারপ্রার্থী স্বামীর দিকে। তাকে বললেন:

    -তোমার অভিযোগ হলো, বাবুর্চি তোমার স্ত্রীর সন্তান নষ্ট করে ফেলেছে।

    -জ্বি হুযুর।

    -ঠিক আছে। তোমার দাবি যথার্থ। এখন নিয়ম হলো:

    -কেউ কারো কিছু নষ্ট করলে, তাকে সেটার ক্ষতিপূরণ দিতে হয়। তুমি তো তোমার সন্তানের ক্ষতিপূরণ চাইছ?

    -জ্বি, হুযুর মেহেরবান।

    -ঠিক আছে। তুমি তোামার বউকে তালাক দিয়ে দাও। তারপরে বাবুর্চি তোমার স্ত্রীকে বিয়ে করবে। তাদের সংসারে সন্তান হলে, তখন তুমি তোমার বউকে ফিরিয়ে নেবে।

    -হুযুর আমার বিচারের কোনও প্রয়োজন নেই। আমার কোনও সন্তান নষ্ট হয় নি।

    বৃদ্ধের বিচার:

    এবার এল মৃত বৃদ্ধের ছেলেদের পালা। তোমাদের অভিযোগ আমি শুনেছি। এখন আমার বিচার হলো। তোমরা একটা বাড়ির ছাদের ওপর উঠবে। আর বাবুর্চি ছাদের নিচে থাকবে। তারপর তোমাদের কেউ একজন ছাদ থেকে লাফিয়ে বাবুর্চির ঘাড়ের ওপর পড়বে। এরপর যা হওয়ার হবে।

    -হুযুরের মেহেরবানি। আমাদের পিতা আগেই মারা গেছেন। এই বাবুর্চি কিছুই করেনি।

    -ঠিক আছে। তাহলে তো বাবুর্চি নির্দোষ।

    অবস্থা বেগতিক দেখে, গাধার মালিক দৌড়ে পালাতে পালাতে বললো:

    -ওরে বাবারে! হুযুর আমার গাধার কান কেউ কাটে নি। ওটাকে আল্লাহ তা‘আলা একটা কান দিয়েই সৃষ্টি করেছেন।
     
    • Funny Funny x 1
  2. Piyash Mahmood
    Offline

    Piyash Mahmood Senior Member Staff Member Moderator

    Joined:
    Sep 2, 2012
    Messages:
    2,312
    Likes Received:
    855
    Gender:
    Male
    Reputation:
    490
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    আহা আমার দেশে ও বুঝি এহেন কাজিতে ভরে গেছে বিচারালয় (কাজি জহির মামা ছাড়া), তাই মাজলুম মানুষ গাধার মালিকের মতো উল্টো ছোটে।:eek:

    বিঃদ্রঃ
    সেই আমলে মিশরে "রাধুনী" মসলা ছিল জানতে পেরে যারপরনাই খুশি হইলাম...:buehehe:
     
  3. kazi mainu
    Offline

    kazi mainu Senior Member Member

    Joined:
    Nov 10, 2014
    Messages:
    1,475
    Likes Received:
    250
    Gender:
    Male
    Location:
    dhaka,Bangladesh.
    Reputation:
    389
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    এই কাজীরমত কাজি আমরা না।
     
    • Agree Agree x 1
  4. মরুভূমির জলদস্যু
    Offline

    মরুভূমির জলদস্যু Writer Staff Member Moderator

    Joined:
    Dec 22, 2012
    Messages:
    7,982
    Likes Received:
    4,012
    Gender:
    Male
    Location:
    Dhaka
    Reputation:
    885
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    হারে কাজির কাহিনী। এমন কাজিতে আজ দেশ সায়লাব হয়ে গেছে।
     

Pls Share This Page:

Users Viewing Thread (Users: 0, Guests: 0)