1. Hi Guest
    Pls Attention! Kazirhut Accepts Only Bengali (বাংলা) & English Language On this board. If u write something with other language, you will be direct banned!

    আপনার জন্য kazirhut.com এর পক্ষ থেকে বিশেষ উপহার :

    যে কোন সফটওয়্যারের ফুল ভার্সন প্রয়োজন হলে Software Request Center এ রিকোয়েস্ট করুন।

    Discover Your Ebook From Our Online Library E-Books | বাংলা ইবুক (Bengali Ebook)

মাদা’য়েন সালেহ, সৌদি আরব

Discussion in 'Cool Images 'n Wallpapers' started by passionboy, Nov 24, 2013. Replies: 91 | Views: 4412

  1. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,943
    Likes Received:
    10,363
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    মাদা’য়েন সালেহ (আরবী: مدائن صالح, madāʼin Ṣāliḥ) কে আল-হিজর, এল-হিজর এবং হেগ্রা নামেও ডাকা হয়। এটি একটি প্রাক-ইসলামিক প্রত্নতাত্ত্বিক এলাকা, যা সৌদি আরবের আল-মদিনার আল-উলা সেক্টরে অবস্থিত। নবটিন রাজ্যের (১ম খ্রিস্টাব্দ শতাব্দী) প্রধান চিহ্ন বহন করছে। এটি তৎকালীন রাজ্যের সর্বদক্ষিণের অঞ্চল নিয়ে গঠিত যা ঐ রাজ্যের রাজধানী ছিল। পেত্রার পর এটি তখনকার দিনে সবচেয়ে বৃহৎ শহর ছিল।
    ১৯৭২ সাল থেকে এই অঞ্চলটি সরকারীভাবে সংরক্ষণকাজ শুরু হয় দর্শনার্থের উদ্দেশ্যে। ২০০৮ সালে ইউনেস্কো মাদা’য়েন সালেহ –কে বিহস্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানে তালিকাভুক্ত করে, যা সৌদি আরবের প্রথম বিশ্ব ঐতিহ্য স্থান।
    এই স্থানকে সুষমভাবে সংরক্ষণ করা হয়, বিশেষভাবে ১৩১ পাথর কেটে তৈরী সৌধ এবং এর আশপাশের সামনের দিকে সুসজ্জিত বিশাল অংশের সংরক্ষণের জন্য
     
  2. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,943
    Likes Received:
    10,363
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    নামকরণ
    এই স্থানের লম্বা ইতিহাস বহুজাতিক সংস্কৃতির চিহ্ন বহন করছে। তাই এই স্থানকে বহু নামে নামকরণ করা হয়, যেসব নামে এখনো ডাকা হয়। এই স্থান বর্তমানে “মাদা’য়েন সালেহ”, আরবীতে “সালেহ এর শহর” নামে পরিচিত। যা ১৩৩৬ সালে আন্দালুসিয়ান পর্যটকের মুদ্রা হতে পাওয়া। “আল-হিজর” আরবীতে “পাথরের শহর”, যা এই স্থানের ভৌগলিক অবস্থাকে পরোক্ষভাবে নির্দেশ করে। কোর’আনে উভয় নামের শহরের উল্লেখ পাওয়া যায়। এই স্থানের প্রাচীন জনগোষ্ঠী হল থামুডিস ও নবটিয়ান্স, যাদের অনুসারে এই স্থানকে “হেগ্রা” নামেও ডাকা হয়।
     
  3. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,943
    Likes Received:
    10,363
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    অবস্থান
    মাদা’য়েন সালেহ প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান আল-উলা শহর থেকে ২০ কি.মি উত্তরে, মদিনা থেকে ৪০০ কিমি. উত্তর-পশ্চিমে এবং জর্ডানের পেত্রা নগরী থেকে ৫০০ কিমি. দক্ষিণ-পূর্ব দিকে অবস্থিত। এই স্থান হিজায পর্বতের পাদদেশের সমতল মালভূমিতে অবস্থিত। এই স্থানের পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে একটি ২০ মিঃ গভীরতাবিশিষ্ট খাল আছে। এই স্থানটি মরুভূমির সৌন্দর্য এবং বিভিন্ন আকার ও উচ্চতায় খোদাইকৃত পাথরের জন্য বিখ্যাত।
     
  4. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,943
    Likes Received:
    10,363
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    ইতিহাস
    • লিহাইয়ান্স
    লিহাইয়ান্স (আরবী:لحيان) একটি প্রাচীন আরব রাজ্য। এটি মাদান’ন সালেহ –তে অবস্থিত ছিল। প্রাচীন ৬ষ্ঠ-৪র্থ খ্রিস্টপূর্বাব্দে খোদাইকৃত উত্তর অ্যারাবিয়ান লিপির জন্য পরিচিত ছিল। এই রাজ্যের প্রাচীন ইতিহাসের একটি সময় জুড়ে একে ডিডেনাইট ডাকা হত, যখন থেকে তাদের রাজধানী ডিডান, যা এখন আরবের উত্তরপশ্চিমস্থ এবং তেইমা থেকে ১১০ কিমি. দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থিত আল-উলা মরুদ্দ্যান নামে পরিচিত।
    পরবর্তীতে লিহাইয়ানাইটস এর সাথে জোট হয়ে নবটিয়ান নামে পরিচিতি লাভ করে।
     
  5. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,943
    Likes Received:
    10,363
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    • প্রাক-নবেটিয়ান
    বিশেষজ্ঞদের মতে মাদা’য়েন সালহে –র নিকটে অবস্থিত আথলেব পর্বতের শীর্ষে অবস্থিত পাথরের উপর ৩য়-২য় খ্রিস্টপূর্ব শতাব্দীতে অংকিত প্রাচীন চিত্রের প্রত্নতাত্ত্বিক চিহ্ন গুলো লিহাইয়ান্টস এর সাক্ষী বহন করে। যা এই এলাকার প্রাচীন মানুষদের বসবাস নির্দেশ করে। কারণ এই এলাকার প্রচুর বিশুদ্ধ পানি ও মাটি উর্বর ছিল। এ স্থানে নিহাইয়ান্সদের বসবাস বসবাসের কারণ এই স্থান বাণিজ্যকেন্দ্রে পরিণত হয়। এ স্থানে পূর্ব, উত্তর ও দক্ষিণের এলাক্য উৎপাদিত পণ্যের বাজার গড়ে উঠেছিল।
     
  6. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,943
    Likes Received:
    10,363
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    • উত্তর-নবেটিয়ান ও রোমান
    ১০৬ খ্রিস্টপূর্বাব্দে নবেটিয়ান রাজ্য রোমান সাম্রাজ্যের সাথে সংযুক্ত হয়। হেগ্রার চারপাশ ঘিরে অবস্থিত হেজায, আরবের রোমান সাম্রাজ্যের একটি প্রদেশে পরিণত হয়।

    ১০৬ খ্রিস্টপূর্বাব্দে আল হেজায অঞ্চলকে আরবে রোমান সাম্রাজ্যের সাথে সমওিত করা হয়। ১৭৫-১৭৭ খ্রিস্টপূর্বাব্দে লিখিত একটি স্মারক রোমান সূত্র-লিপি, যাতে এর প্রমাণ পাওয়া যায়, যা সাম্প্রতিক আবিষ্কার করা হয়।
    বাণিজ্যের স্থলপথ উত্তর থেকে পশ্চিমদিকে আরব উপত্যকা দিয়ে লোহিত সাগর পর্যন্ত তৈরী হওয়ায়, হেগ্রায় ব্যাবসা বাণিজ্য দিনদিন হ্রাস পেতে থাকে, যা হেগ্রার পরিত্যক্ত হওয়ার প্রধান কারণ।
     
  7. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,943
    Likes Received:
    10,363
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    • আরবে রোমান
    আরবে রোমান সাম্রাজ্যের পতন থেকে ইসলামের বিকাশ পর্যন্ত হেগ্রার ইতিহাস এখনো অজানা। যদিও কিছু পর্যটক ও মনীষীদের লেখা থেকে এর কিছু বিক্ষিপ্ত কিছু ইতিহাস পাওয়া যায়। তাদের ভাষ্যমতে হেগ্রা ধর্মীয় কাজে ব্যবহৃত হত, যাতে ধার্মিকদের খাদ্য পানি সরবরাহের মাধ্যেম সাহায্য করা হত।

    ষষ্ঠদশ শতাব্দীতে এই স্থান অটোম্যান শাসনাধীন হয়। আল-হিজরে একটি দূর্গ নির্মাণ করা হয়। এই দূর্গ মক্কাগামী ধার্মিকদের নিরাপত্তার জন্য তৈরী করা হয়।
     
  8. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,943
    Likes Received:
    10,363
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    • কোর’আনে উক্ত স্থান
    কোর’আন অনুযায়ী, খ্রিস্টপূর্ব ৩য় শতাব্দীতে, মাদা’য়েন সালেহ এলাকায় তাহমুদ নামে জনগোষ্ঠী বসবাস করত। কোর’আনে বলা হয়েছে, তারা মূর্তি পুজা করত; এসব জনগোষ্ঠীরা বিভিন্ন শোষনের শিকার হত। নবী হযরত সালেহ (আঃ) , যার নাম অনুসারে মাদা’য়েন সালেহ। তার কথা বিশ্বাস না করার ফলে উপর আযাব বর্ষিত হয়, যা কোর’আনে উল্লেখ আছে।
     
  9. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,943
    Likes Received:
    10,363
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    বর্তমান উন্নয়ন কাজ
    যদিও ১৯৭০ দশকের প্রথম দিকে দাবি করা হয়েছিল, যাতে আল-হিজর –কে প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার। তখন থেকে কিছু অনুসন্ধানও চালানো হয়েছিল। এই স্থানের উপর বিভিন্ন জিনিসের উপর ধর্মীয় অনুশাসন বিদ্যমান থাকায় তা অনেকাংশে স্বীকৃতি পেতে বিলম্ব ঘটায়। ফলে ২০০০ সালে ইউনেস্কোর একটি বিশেষজ্ঞ দল এ স্থান পরিদর্শনে আসলে সৌদি সরকারকে তাদের নিরাপত্তা বিধানে বিশেষ পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হয়। যাহোক ২০০৮ সালে এই স্থানকে ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্য স্থান হিসেবে ঘোষনা করে।
     
  10. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,943
    Likes Received:
    10,363
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    স্থাপত্য
    ১ম খ্রিস্টপূর্বাব্দে হেগ্রার নবেটিয়ান অঞ্চল আবাসিক এলাকা হিসেবে নির্মান করা হয়। এই স্থানের পাথরগুলো কাটা হয় ওখানকার বসবাসকারীদের গোরস্থান তৈরীর উদ্দেশ্যে। এই চারটি গোরস্থান আছে যাকে ১৩১ টি আকর্ষক পাথর যাকে বৈশিষ্ট্যমন্ডিত করেছে, যা ১৩.৪ কিমি. যা নবেটিয়ান সম্মুখভাগের অন্তর্লিপিতে পাওয়া যায়। তার চিত্র এইরকমঃ

    গোরস্থানঅবস্থাননির্মানকালবৈশিষ্ট্য
    জাবাল আল-মাজহারউত্তরতথ্যবিহীনপূর্ব ও পশ্চিমদিকের চারটি বৃহৎ পাথরখন্ড সমান্তরালভাবে কাটা। সম্মুখভাগে ছোট আকারের নকশা বিদ্যমান
    কাসার আল ওয়ালাদতথ্যবিহীন০-৫৮ খ্রিস্টপূর্বাব্দকাল্পনিক প্রাণী, মানুষের মুখ, পাখির নকশা সম্বলিত অতি সুন্দর নকশা সম্বলিত ৩১ টি সমাধি। এই অংশে সর্ববৃহৎ সম্মুখভাগ বিদ্যমান, যার উচ্চতা ১৬ মিঃ
    এরিয়া সিদক্ষিণ-পূর্ব১৬-৬১ খ্রিস্টপূর্বাব্দএকক সমাধীসহ মোট ১৯ টি সমাধী। সম্মুখভাগ নকশাবিহীন
    জাবাল আল-খুরায়মাতদক্ষিণ-পশ্চিম৭-৭৩ খ্রিস্টপূর্বাব্দচারটি বৃহৎ সমাধী সম্বলিত গোরস্থান। অসংখ্য সমাধী বিভিন্ন বালুময় এলাকা দ্বারা বিভক্ত। যদিও শুধু ৮টি সমাধী সম্মুখভাগ খচিত। সংখ্যায় মোট ৪৮ টি।

    সৌধবিহীন গোরস্থানসহ, মোট ২০০০টি সমাধী। যা এই স্থানের অংশ।

    সমতল ভূমির মধ্যাংশে আবাসিক এলাকা অবস্থিত। যা সমাধীক্ষেত্র হতে দূরে। এই বাসস্থান তৈরীর প্রধান উপকরণ হল মাটির তৈরী রোদে শুকানো ইট, যার কিছু অংশ এখনো বিদ্যমান।

    এই স্থানের পশ্চিম ও দক্ষিণ-পশ্চিমাংশে মোট ১৩০ কূয়ায় পানি সরবরাহ করা হত। ৪-৭ মিঃ ব্যাসবিশিষ্ট্য এসব কূয়ার গভীরতা ছিল মাত্র ২০ মিঃ। যার অধিকাংশ কূয়া পাথর কেটে তৈরী করা হয়েছিল। তবে কিছু কিছু কূয়া পাথর দ্বারা শক্তি প্রয়োগ করে মাটি নরম করে তৈরী করা হয়েছিল।
     

Pls Share This Page:

Users Viewing Thread (Users: 0, Guests: 0)