1. Hi Guest
    Pls Attention! Kazirhut Accepts Only Bengali (বাংলা) & English Language On this board. If u write something with other language, you will be direct banned!

    আপনার জন্য kazirhut.com এর পক্ষ থেকে বিশেষ উপহার :

    যে কোন সফটওয়্যারের ফুল ভার্সন প্রয়োজন হলে Software Request Center এ রিকোয়েস্ট করুন।

    Discover Your Ebook From Our Online Library E-Books | বাংলা ইবুক (Bengali Ebook)

উমাইয়া মসজিদ, দামেস্ক, সিরিয়া

Discussion in 'Cool Images 'n Wallpapers' started by passionboy, Jan 22, 2014. Replies: 305 | Views: 9601

  1. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,888
    Likes Received:
    10,360
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    উমাইয়া মসজিদ, দামেস্কের গ্রেট মসজিদ হিসেবেও পরিচিত (আরবীঃ جامع بني أمية الكبير‎, রোমানঃ Ğāmi' Banī 'Umayya al-Kabīr)। এই মসজিদটি দামেস্কের পুরাতন শহরে অবস্থিত, যা বিশ্বের বৃহত্তম ও প্রাচীন মসজিদগুলোর মধ্যে অন্যতম। মুসলমানদের একটি অংশের মতে এটি ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের চতুর্থ পবিত্র স্থান।

    ৬৩৪ সালে আরব বিজয়ের পর, জন দ্য বাপটিস্ট (খ্রিস্টান দীক্ষা দান গুরু) ইয়াহ্‌ইয়া এর খ্রিস্টানদের উৎসর্গকৃত স্থানে এই মসজিদটি স্থাপিত হয়। এই মসজিদে এখনো যাতে এখনো জন দ্য মাপটিস্ট এর মাথা আছে বলে ধারনা করা হয়। এই স্থানটি খ্রিস্টান ও মুসলিম উভয়ই ধর্মাবলম্বীদের জন্য পবিত্র ও সম্মানজনক স্থান। খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীরা বিশ্বাস করে যে “যীশু” তার শেষের দিনগুলোতে এখানে আগমণ করেন। সালাদিনের মাজার মসজিদের উত্তরদিকের প্রাচীরের সাথে লাগানো একটি ছোট্ট বাগানে অবস্থিত।

     
    Last edited: Jan 22, 2014
  2. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,888
    Likes Received:
    10,360
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    • ইতিহাস
    প্রাক-ইসলামী যুগ
    লৌহ যুগে দেমাস্কাস অ্যারাম-দামেস্কের অ্যারামিয়ান স্টেটের রাজধানী ছিল। পশ্চিম সিরিয়ার অ্যারামিয়ানরা হাদাদ-রাম্মান এর সংস্কৃতির অনুসারী ছিল, এই হাদাদ-রাম্মান হল বৃষ্টি ও বজ্রপাতের প্রভু। এই হাদাদ-রাম্মান –কে উৎসর্গকৃত একটি মন্দিরের স্থানে নির্মিত আজকে উমাইয়া মসজিদ। এইটা ঠিকভাবে জানা যায় যে, তৎকালীন মন্দিরটি দেখতে ঠিক কেমন ছিল, কিন্তু এইটা বিশ্বাস করা হয় যে মন্দিরটি ঐতিহ্যবাহী সিমিটিক-কানানিট স্থাপত্যশৈলী অনুসরণ করে স্থাপিত হয়েছিল, জেরুজালেম মন্দির নামে পরিচিত ছিল। এই অ্যারামিয়ান মন্দিরটির একটি পাথর এখনো দামেস্কের জাতীয় যাদুঘরে এখনো সংরক্ষিত আছে।
     
  3. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,888
    Likes Received:
    10,360
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    আরব খেলাফত ও মসজিদ নির্মাণ
    ৬৩৪ সালে মুসলিম আরব শাসক খালিদ-ইবন-ওয়ালিদ দামেস্ককে নতুনভাবে নির্মাণ ও অন্য উচ্চতায় নিয়ে যান। এই দশকের পরে, ইসলামীক খেলাফত শাসন উমাইয়া রাজবংশের অধীনে আসে। তখন দামেস্ক –কে মুসলিম বিশ্বের প্রশাসনিক রাজধানী হিসেবে নির্বাচন করা হয়। ষষ্ঠ উমাইয়া খলিফা আল-ওয়ালিদ (৭০৫-৭১৫) ৭০৬ সালে বায়জানাইথ ক্যাথেড্রাল এর পাশে একটি মসজিদ নির্মানের জন্য একটি কমিশন গঠন করেন। এর পূর্বে, ক্যাথেড্রাল গির্জাটি স্থানীয় খ্রিস্টানরা ব্যবহার করত, যা এখনো ব্যবহৃত হয়, কিন্তু এই গির্জাটির দক্ষিণ-পূর্ব দিকে মুসলমানদের জন্য প্রধান প্রার্থনা কক্ষ (মুসাল্লা) ছিল। আল-ওয়ালিদ মুসাল্লা সহ ক্যাথেড্রাল গির্জাটির বেশিরভাগ অংশ ভেঙে সম্পূর্ণ নতুন আঙ্গিকে মসজিদ নির্মান করেন, যার নির্মানকাজ তিনি ব্যক্তিগত ভাবে পরিদর্শন করেন। এই নতুন মসজিদটি প্রধান মসজিদ হিসেবে ভূমিকা রাখে যা, দামেস্ক শহরের নাগরিকদের প্রার্থনার জন্য ব্যবহৃত হত। খ্রিস্টানদের আন্দোলনের মুখে আল-ওয়ালিদ দামেস্ক শহরের সব গির্জা খ্রিস্টানদের ফিরিয়ে দেয়া হয়। মসজিদের নির্মানকাজ শেষ হয় ৭১১৫ খ্রিস্টাব্দে, তার উত্তরাধিকার, সুলায়মান ইবন আব্দ-আল-মালিক (৭১৫-৭১৭) এর শাসনামলে।
    দশম শতাব্দীর পারস্য ইতিহাদবিদ ইবন-আল-ফাকিহ্‌ এর মতে, এই নির্মানকাযে তৎকালীন ৬,০০,০০০ থেকে ১০,০০,০০০ দিনার ব্যয় হয়। পারস্য, ভারতীয়, গ্রীক এবং মরক্কোর শ্রমিকদের সমন্বয়ে প্রায় ১২,০০০ শ্রমিক এই নির্মানকাজে নিয়োজিত হয়।
     
  4. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,888
    Likes Received:
    10,360
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    সেলজুক ও আযুবিদ যুগ
    ১০৭৮ সালে সুন্নী মুসলিম সেলজুক তার্ক এই শহরের শাসনাভার গ্রহণ করেন এবং তিনি আব্বাসিয় খেলাফতের শাসন পুনরুদ্ধার করেন। সেলজুক রাজা তুতুশ (১০৭৯-১০৯৫) ১০৬৯ সালের অগ্নিকান্ডে মসজিদের ধ্বংস্প্রাপ্ত অংশ ঠিক করেন। এরপর দামেস্কের সেলজুক আতাবেগ, তথিকিং (১১০৪-১১২৮), মসুলের সেলজুক আতাবেগ, শরফ আল-দীন মওদুদ (১১০৯-১১১৩) এর আমলে উমাইয়া মসজিদের পুনঃনির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়।
     
  5. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,888
    Likes Received:
    10,360
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    মামলুক শাসনামল
    ১৪৮৮ সালে মামলুক সুলতান মামলুক কাইতবাঈ –এর নামানুসারে মসজিদের কাইতবাঈ মিনার নির্মিত হয়। এই মামলুক শাসনামলে এই মসজিদের অনেক উন্নতকরণের কাজ করা হয়। মামলুক শাসনাওলে এই মসজিদের বিভিন্ন স্থানে মার্বেল পাথর দ্বারা সুশোভিত করা হয়। এই সময় মসজিদের অনেক অংশ পুনরুদ্ধার করা হয়। এই পুনরুদ্ধার কাজে সিরিয়া ও মিশরের মামলুক শাসনামলের প্রভাব লক্ষ্য করা যায়।
     
  6. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,888
    Likes Received:
    10,360
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    অটোম্যান যুগ
    ১৫১৬ সালে অটোম্যান সাম্রাজ্যের অধীনে সেলিম I মামলুক রাজপরিবারের কাছ থেকে দামেস্ক বিজয় করেন। উমাইয়া মসজিদে তার শাসনামলের প্রথম জুমা’র নামাযে সুলতান নিজে উপস্থিত ছিলেন। অটোম্যান সম্রাট এই ধর্মীয় স্থানটিকে কেন্দ্রিয় পরিষদের মাধ্যমে স্থানীয় জনগণের জন্য উন্মুক্ত সম্পত্তি (ওয়াক্‌ফ) হিসেবে ঘোষনা করেন। এই ওয়াক্‌ফ স্টেটটি শহরের সর্ববৃহৎ স্টেট যেখানে ৫৯৬ জন কর্মকর্তা ও কর্মচারী ছিল।
     
  7. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,888
    Likes Received:
    10,360
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    ফরাসী শাসনামল
    উমাইয়া মসজিদের প্রধান পুনরুদ্ধার কাজ শুরু হয় ১৯২৯ সালে সিরিয়ায় ফরাসী শাসনামলে এবং ১৯৬৩ সালে সিরিয়া প্রজাতন্ত্রের সময়ে।
     
  8. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,888
    Likes Received:
    10,360
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    প্রাক-উপনিবেশ যুগ
    ১৯৮০’র দশকে ও ১৯৯০ দশকের শুরুতে, সিরিয়ার রাষ্ট্রপতি হাফেজ আল-আসাদ উম্মায়্যাদ মসজিদের বিনির্মানের জন্য বিশাল পদক্ষেপ গ্রহনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। হাফেজ আল-আসাদের এই ধারনা ও কর্মপদ্ধতিকে ইউনেস্কো সমালোচনা করে। কিন্তু সাধারণ দৃষ্টিভঙ্গিতে এই মসজিদটি ঐতিহ্য রক্ষার চেয়ে শহরের প্রতীক হিসেব গ্রহনীয় হত, তাই এর বিনির্মান কাজ আরো কমিয়ে আনা হয়। এর বিনির্মাণ কাজ করা হয় শুধুমাত্র এর ঐতিহ্যের প্রতীককে আরেকটু বৃদ্ধির লক্ষ্যে।

    ২০০১ সালে পোপ জন পল II মসজিদটি পরিদর্শন করেন, বিশেষত তিনি জন দ্য বাপটিস্ট এর সংরক্ষিত স্মৃতিচিহ্ন পরিদর্শন করেন। এই প্রথম কোন মসজিদ কোন পোপ পরিদর্শনে করেন।

    ২০১১ সালের ১৫ মার্চ, সিরিয়ান গৃহযুদ্ধের সাথে সম্পর্কযুক্ত প্রথম আন্দোলন শুরু হয়। এই সময় উমাইয়া মসজিদ কমপ্লেক্সের বাইরে ৪০-৫০ মুসল্লী জড়ো হয়ে প্রাক-গণতন্ত্রের জন্য শ্লোগান দিতে থাকে। সিরিয়ান নিরাপত্তা কর্মীরা দ্রুত আন্দোলনকারীদের দমন করেন এবং এরপর থেকে ঐ এলাকা শুক্রবারের জুমা’র নামাযের সময় নিরাপত্তা কর্মীরা একটি অস্থায়ী ব্যারিকেড দিয়ে রাখে বিক্ষোভ দমন করার জন্য।
     
  9. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,888
    Likes Received:
    10,360
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    • স্থাপত্যশৈলী
    মসজিদ অঙ্গন ও প্রধান ভবন
    উমাইয়া মসজিদটি আকারে আয়তক্ষেত্র যার আয়তন দৈর্ঘ্যে ৯৭ মিঃ (৩১৮ ফুট) ও প্রস্থে ১৫৬ মিঃ (৫১২ ফুট)। একটি বিশাল উঠান মসজিদ কমপ্লেক্সের উত্তরাংশ জুড়ে অবস্থিত এবং হারাম (পবিত্র স্থান) কমপ্লেক্সের দক্ষিণাংশে। এর উঠান ও আশপাশ এলাকা চারদিকে দেয়ালের সীমানা দিয়ে ঘেরা করা। এই দেয়ালের পাথরের বিন্যাস উচু নিচু, যা মসজিদের ইতিহাসে বিভিন্ন সংস্কারের চিহ্ন বহন করছে। কিন্তু বর্তমান সংস্কার কাজ এই মসজিদের পূর্বের উমাইয়া যুগের স্থাপত্য শৈলী পুনরুদ্ধার করা হয়েছে। এই প্রাচীরকে ঘিরে আছে তৌরণ যা দাঁড়িয়ে আছে অতিরিক্ত পাথরের কলাম ও জোড়-স্তম্ভ দ্বারা। প্রত্যেক দুই কলামের মধ্যে একটি জোড়-স্তম্ভ বিদ্যমান। কারণ ১৭৫৯ সালের ভূমিকম্পে এর প্রাঙ্গনের উত্তরাংশ ধ্বসে যায়। এই ধরনের তিনটি তোরণ দ্বারা প্রধান কক্ষের অভ্যন্তর গঠিত।
     
  10. passionboy
    Offline

    passionboy Kazirhut Suprime Member Staff Member Global Moderator

    Joined:
    Aug 20, 2012
    Messages:
    56,888
    Likes Received:
    10,360
    Gender:
    Male
    Location:
    সিটি গেইট, চট্টগ্রাম
    Reputation:
    704
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    গম্বুজ
    এই মসজিদের সর্ববৃহৎ গম্বুজটি “ডোম্ব অব ঈগল” ("Dome of the Eagle") নামে পরিচিত। যার আসল নাম কুব্বাত আন-নিস্‌র (Qubbat an-Nisr) এবং এটি প্রধান কক্ষের উপরে কেন্দ্রীয়ভাবে অবস্থিত। ১৮৯৩ সালের অগ্নিকান্ডের পর এর কাঠের তৈরী গম্বুজটির স্থানে পাথরের তৈরী গম্বুজটি তৈরী হয়। এর উচ্চতা ৩৬ মিঃ (১১৮ ফুট)। এই গম্বুজটি কেন্দ্রীয় আভ্যন্তরীণ তৌরণের উপর অবস্থিত।
     

Pls Share This Page:

Users Viewing Thread (Users: 0, Guests: 0)