1. Hi Guest
    Pls Attention! Kazirhut Accepts Only Bengali (বাংলা) & English Language On this board. If u write something with other language, you will be direct banned!

    আপনার জন্য kazirhut.com এর পক্ষ থেকে বিশেষ উপহার :

    যে কোন সফটওয়্যারের ফুল ভার্সন প্রয়োজন হলে Software Request Center এ রিকোয়েস্ট করুন।

    Discover Your Ebook From Our Online Library E-Books | বাংলা ইবুক (Bengali Ebook)

Collected মহাদেব সাহার কবিতাসমুহ

Discussion in 'Collected' started by Tazul Islam, May 27, 2016. Replies: 187 | Views: 7922

  1. Tazul Islam
    Offline

    Tazul Islam Kazirhut Lover Member

    Joined:
    Apr 20, 2016
    Messages:
    19,473
    Likes Received:
    538
    Gender:
    Male
    Location:
    Dhaka
    Reputation:
    142
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    তোমার জন্য
    - মহাদেব সাহা---তোমার পায়ের শব্দ


    তোমার জন্য জয় করেছি একটি যুদ্ধ
    একটি দেশের স্বাধীনতা,
    তোমার হাসি, তোমার মুখের শব্দগুলি
    সেই নিরালা দূর বিদেশে আমার ছিলো
    সঙ্গী এমন,
    অস্ত্র কিংবা যুদ্ধজাহাজ ছিলো না তো সেসব কিছুই
    ছিলো তোমার ভালোবাসার রাঙা গোলাপ
    আমার হাতে
    ছিলো তোমার খোঁপা থেকে মধ্যরাতে খুলে নেয়া
    ভালোবাসার সবুজ গ্রেনেড, গুপ্ত মাইন
    স্বর্ণচাপা কিংবা ছিলো বক্ষ থেকে তুলে নেয়া
    তোমার ভালোবাসার দেশে আমি স্বাধীন
    পরাক্রান্ত।
    আমার কাছে ছিলো তোমার ভালোবাসার নীল অবরোধ
    তোমার জন্য জয় করেছি একটি যুদ্ধ
    একটি দেশের স্বাধীনতা!
     
  2. Tazul Islam
    Offline

    Tazul Islam Kazirhut Lover Member

    Joined:
    Apr 20, 2016
    Messages:
    19,473
    Likes Received:
    538
    Gender:
    Male
    Location:
    Dhaka
    Reputation:
    142
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    তোমরা কি জানো
    - মহাদেব সাহা---তোমার পায়ের শব্দ


    তোমরা কি জানো এ শহর কেন হঠাৎ এমন
    মৌনমিছিলে হয়ে ওঠে ভারী, অশ্রুসিক্ত? কেন
    বয়ে যায় শোকার্ত মেঘ আর থোকা থোকা শিশিরবিন্দু
    পথে কেন এতো কৃষ্ণচূড়ার গাঢ় সমাবেশ; আমি জানি এতো
    মেঘ নয়, নয় শীতের শিশির; প্রিয়হারা এ যে
    একুশে রাজপথ জুড়ে এতো রঙিন আল্পনা আঁকা
    তোমরা কি জানো সে তো নয় কোনো রঙ ও তুলির ব্যঞ্জনা কিছু
    এই আল্পনা, পথের শিল্প শহীদেরই তাজা রক্তের রঙ মাখা!
     
  3. Tazul Islam
    Offline

    Tazul Islam Kazirhut Lover Member

    Joined:
    Apr 20, 2016
    Messages:
    19,473
    Likes Received:
    538
    Gender:
    Male
    Location:
    Dhaka
    Reputation:
    142
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    একুশের কবিতা
    - মহাদেব সাহা---তোমার পায়ের শব্দ


    ভিতরমহলে খুব চুনকাম, কৃষ্ণচূড়া
    এই তো ফোটার আয়োজন
    বাড়িঘর কী রকম যেন তাকে হলুদ অভ্যাসবশে চিনি,
    হাওয়া একে তোলপাড় করে বলে, একুশের ঋতু!
    ধীরে ধীরে সন্ধ্যার সময় সমস্ত রঙ মনে পড়ে, সূর্যাস্তের
    ন্নি সরলতা
    হঠাৎ আমারই জামা সূর্যাস্তের রঙে ছেয়ে যায়,
    আর আমার অজ্ঞাতে কারা আর্তনাদ করে ওঠে রক্তাক্ত রক্তিম
    বলে তাকে!
    আমি পুনরায় আকাশখানিরে চেয়ে দেখি
    নক্ষত্রপুঞ্জের মৌনমেলা,
    মনে হয় এঁকেবেঁকে উঠে যাবে আমাদের
    ছিন্নভিন্ন পরাস্ত জীবন,
    অবশেষে বহুদূরে দিগন্তের দিকচিহ্ন মুছে দিয়ে
    ডাক দেবে আমরাই জয়ী!
     
  4. Tazul Islam
    Offline

    Tazul Islam Kazirhut Lover Member

    Joined:
    Apr 20, 2016
    Messages:
    19,473
    Likes Received:
    538
    Gender:
    Male
    Location:
    Dhaka
    Reputation:
    142
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    আমি কি বলতে পেরেছিলাম
    - মহাদেব সাহা---তোমার পায়ের শব্দ


    আমার টেবিলের সামনে দেয়ালে শেখ মুজিবের
    একটি ছবি টাঙানো আছে
    কোন তেলরঙ কিংবা বিখ্যাত স্কেচ জাতীয় কিছু নয়
    এই সাধারণ ছবিখানা ১৭ মার্চ- এ বছর শেখ মুজিবের
    জন্ম দিনে একজন মুজিব প্রেমিক আমাকে উপহার দিয়েছিলো
    কিন্তু কে জানতো এই ছবিখানা হঠাৎ দেয়াল ব্যপে
    একগুচ্ছ পত্র পুষ্পের মতো আমাদের ঘরময়
    প্রস্ফুটিত হয়ে উঠবে রাত্রিবেলা
    আমি তখন টেবিলের সামনে বসেছিলাম আমার স্ত্রী ও সন্তান
    পাশেই নিদ্রামগ্ন
    সহসা দেখি আমার ছোট্ট ঘরখানির দীর্ঘ দেয়াল জুড়ে
    দাঁড়িয়ে আছেন শেখ মুজিব;
    গায়ে বাংলাদেশের মাটির ছোপ লাগানো পাঞ্জাবি
    হাতে সেই অভ্যস্ত পুরনো পাই
    চোষে বাংলার জন্য সজল ব্যাকুলতা
    এমনকি আকাশকেও আমি কখনো এমন গভীর ও জলভারানত
    দেখিনি।
    তার পায়ের কাছে বয়ে যাচ্ছে বিশাল বঙ্গোপসাগর
    আর তার আলুথালু চুলগুলির দিকে তাকিয়ে
    আমার মনে হচ্ছিলো
    এই তো বাংলার ঝোড়ো হাওয়ায় কাঁপা দামাল নিসর্গ
    চিরকাল তার চুলগুলির মতোই অনিশ্চিত ও কম্পিত
    এই বাংলার ভবিষ্যৎ!
    তিনি তখনো নীরবে তাকিয়ে আছেন, চোখ দুটি স্থির অবিচল
    জানি না কী বলতে চান তিনি,
    হঠাৎ সারা দেয়াল ও ঘর একবার কেঁপে উঠতেই দেখি
    আমাদের সঙ্কীর্ণ ঘরের ছাদ ভেদ করে তার একখানি হাত
    আকাশে দিকে উঠে যাচ্ছে-
    যেমন তাকে একবার দেখেছিলাম ৬৯-এর গণআন্দোলনে
    তিনি তখন সদ্য ষড়যন্ত্র মামলা থেকে বেরিয়ে এসেছেন
    কিংবা ৭০-এর পল্পনে আর একবার ৭১-এর ৭ই মার্চের
    বিশাল জনসভায়;
    দেখলাম তিনি ক্রমে উষ্ণ, অধীর ও উত্তেজিত হয়ে উঠছেন
    একসময় তার ঠোঁট দুটি ঈষৎ কেঁপে উঠলো
    বুঝলাম এক্ষুনি হয়তো গর্জন করে উঠবে বাংলার আকাশ,
    আমি ভয়ে লজ্জায় ও সঙ্কোচে নিঃশব্দে মাথা নিচু করে দাঁড়ালাম।
    আমার মনে হেলা আমি যেন
    মুখে হাত দিয়ে অবনত হয়ে আছি
     
  5. Tazul Islam
    Offline

    Tazul Islam Kazirhut Lover Member

    Joined:
    Apr 20, 2016
    Messages:
    19,473
    Likes Received:
    538
    Gender:
    Male
    Location:
    Dhaka
    Reputation:
    142
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    বাংলাদেশের চিরন্তন প্রকুতির কাছে,
    একটি টলোমলো শাপলা ও দিঘির কাছে,
    শ্রাবণের ভরা নদী কিংবা অফুরন্ত রবীন্দ্রসঙ্গীতের কাছে
    কিন্তু তার মুখ থেকে কোনো অভিযোগ নিঃসরিত হলো না;
    তবু আমি সেই নীরবতার ভাষা বুঝতে চেষ্টা করলাম
    তখন কী তিনি বলতে চেয়েছিলেন, কী ছিলো তার ব্যাকুল প্রশ্ন
    ব্যথিত দুটি চোখে কী জানার আগ্রহ তখন ফুটে উঠেছিলো!
    সে তো আর কিছুই নয় এই বাংলাদেশের ব্যগ্র কুশলজিজ্ঞাসা
    কেমন আছে আট কোটি বাঙালী আর এই বাংলা বাংলাদেশ!
    কী বলবো আমি মাথা নিচু করে ক্রমে মাটির সাথে মিশে
    যাচ্ছিলাম-
    তবু তাকে বলতে পারিনি বাংরার প্রিয় শেখ মুজিব
    তোমার রক্ত নিয়েও বাংলায় চালের দাম কমেনি
    তোমার বুকে গুলি চালিয়েও কাপড় সস্তা হয়নি এখানে,
    দুধের শিশু এখনো না খেয়ে মরছে কেউ থামাতে পারি না
    বলতে পারিনি তাহলে রাসেলের মাথার খুলি মেশিনগানের
    গুলিতে উড়ে গেল কেন?
    তোমাকে কিভাবে বলবো তোমার নিষ্ঠুর মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে
    প্রথমে জয়বাংলা, তারপরে একে একে ধর্মনিরপেক্ষতা
    একুশে ফেব্রুয়ারী ও বাংলাভাষাকে হত্যা করতে উদ্রত
    হলো তারা,
    এমনকি একটি বাঙালী ও বাংলাভাষাকে হত্যা করতে উদ্যত
    হলো তারা,
    এমনকি একটি বাঙালী ফুল ও একটি বাঙালী পাখিও রক্ষা পেলো না।
    এর বেশি আর কিছুই তুমি জানতে চাওনি বাংলার প্রিয়
    সন্তান শেখমুজিব!
    কিন্তু আমি তো জানি ১৫ই আগষ্টের সেই ভোরবেলা
    প্রথমে এই বাংলার কাক, শালিক ও খঞ্জনাই
    আকাশে উড়েছিলো
    তার আগে বিমানবাহিনীর একটি বিমানও ওড়েনি,
    তোমার সপক্ষে একটি গুলিও বের হয়নি কোনো কামান থেকে
    বরং পদ্মা-মেঘনাসহ সেদিন বাংলার প্রকৃতিই একযোগে
    কলরোল করে উঠেছিলো।
    আমি তো জানি তোমাকে একগুচ্ছ গোলাপ ও স্বণৃচাঁপা
    দিয়েই কী অনায়াসে হত্যা করতে পারতো,
    তবু তোমার বুকেই গুলির পর গুলি চালালো ওরা
    তুমি কি তাই টলতে টলতে টলতে টলতে বাংলার ভবিষ্যৎকে
    বুকে জড়িয়ে সিঁড়ির উপর পড়ে গিয়েছিলে?
    শেখ মুজিব সেই ছবির ভিতর এতোক্ষণ স্থির তাকিয়ে থেকে
    মনে হলো এবার ঘুমিয়ে পড়তে চান
    আর কিছুই জানতে চান না তিনি;
    তবু শেষবার ঘুমিয়ে পড়ার আগে তাকে আমার বলতে
    ইচ্ছে করছিলো
    সারা বাংলায় তোমার সমান উচ্চতার আর কোনো
    লোক দেখিনি আমি।
    তাই আমার কাছে বার্লিনে যখন একজন ভায়োলিন্তবাদক
    বাংলাদেশ সম্বন্ধে জানতে চেয়েছিলো আমি
    আমার বুক-পকেট থেকে ভাঁজ-করা একখানি দশ
    টাকার নোট বের করে শেখ মুজিবের ছবি দেখিয়েছিলাম
    বলেছিলাম, দেখো এই বাংলাদেশ;
    এর বেশি বাংলাদেশ সম্পর্কে আমি আর কিছুই জানি না!
    আমি কি বলতে পেরেছিলাম, তার শেষবার ঘুমিয়ে পড়ার
    আগে আমি কি বলতে পেরেছিলাম?

     
  6. Tazul Islam
    Offline

    Tazul Islam Kazirhut Lover Member

    Joined:
    Apr 20, 2016
    Messages:
    19,473
    Likes Received:
    538
    Gender:
    Male
    Location:
    Dhaka
    Reputation:
    142
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    আমার সোনার বাংলা
    - মহাদেব সাহা---তোমার পায়ের শব্দ


    আমি যে দেশকে দেখি সে কি এই স্বপ্নভূমি থেকে জেগে ওঠা
    বহুদূরব্যাপী কল্লোলিত, সে কি রূপসনাতন
    সে কি আমার সোনার বাংলা, কোনো রূপকথা নয়!
    তার চক্ষুদ্বয় তবে এমন কোটরাগত কেন, মুখ জুড়ে সূর্যাস্তের
    কালোছায়া,
    কেন তার সবুজ গাছের দিকে সহসা তাকালে দেখি
    ধূসর পিঙ্গল বর্ণ, নেমেছে তুষার আর মাছে সারি সারি
    কুয়াশার তাঁবু
    লোকশ্রুত এই কি সোনার বাংলা শোনা যায় শুধু শোকগাথা!
    কেউ কেউ দেশের বদলে তাই মানচিত্র দেখায় কেবল
    বলে, এখানে গোলাপ চাষ হয়, এখানে অধিক খাদ্য ফলে
    গান শোনে টেপরেকর্ডার বাংলার চিরন্তন মুগ্ধ ভাটিয়ালি
    আর বারোমাস পাখির কূজন
    তারও কিছু সামান্য নমুনা এই পেটে
    যেন মেপে মেপে দেশের মডেল একখানি
    অপরূপ কাসকেটে তুলে রাখা আছে!
    মৃদু টেপে এখানে পাখিরও গান শোনা যায়, ম্যাপের রেখায় মূত্য
    স্নিগ্ধ নদী, শেস্যক্ষেত, সবুজলালিত ঘন পার্ক
    সুচারু ফোয়ারা থেকে ঝরে জল পান করে পাথরের
    পীতাভ হরিণ
    চেয়ে আছে স্বপ্নময় বাংলাদেশ ট্যুরিস্টের মনোরম ম্যাপের পাতায়।
    আমি যে দেশকে দেখি সে যে এই স্বপ্নভূমি থেকে উঠে আসা
    আপাদমস্তক ভিন্নভিন্ন
    সে যে আজো জয়নুলের দূর্ভিক্ষের ছিন্নভিন্ন
    সে যে আজো জয়নুলের দুর্ভিক্ষের কাক
    আজো বায়ান্নর বিক্ষুব্ধ মিছিল
    আজো আলুথালু, আজো দুঃখী,
    আজো ক্ষুন্ন পদাবলী!
    তার কনকচাঁপার সব ঝাড় কেটে আজ সেখানেই বারুদ
    শুকানো হয় রোদে
    আর চন্দ্রমল্লিকার বনে আততায়ীদের কী জমাট আড্ডা বসে গেছে,
    নিষ্পত্র নিথর লেকালয় দুঃখ-অধ্যুষিত
    সেই পিকাসোর বেয়াড়া ষাঁড়টি যেন তছনছ করে এই নিকানো
    উঠোন ঘরবাড়ি
    লোকশ্রুত এই কি সোনার বাংলা, এই কি সোনার বাংলা!
     
  7. Tazul Islam
    Offline

    Tazul Islam Kazirhut Lover Member

    Joined:
    Apr 20, 2016
    Messages:
    19,473
    Likes Received:
    538
    Gender:
    Male
    Location:
    Dhaka
    Reputation:
    142
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    সুবর্ণ সেই আলোর রেখা
    - মহাদেব সাহা---কোথায় যাই, কার কাছে যাই


    থাকে না এই জলের রেখা
    এই জীবনে সবাই একা।
    একলা ঘর, শূন্য ফাঁকা
    সুখের কোছও বিষাদমাখা,
    উদাস বাউল ঘুরছে পথ
    ব্যর্থ-বিফল মনোরথ।
    দুর আকাশে আলোর রেখা
    আর দুজনের হয় না দেখা।
    হাওয়ায় ওড়ে বাদামী চুল
    স্বপ্ন যেন আকাশী ফুল;
    এই জীবনে হয় না দেখা
    সুবর্ণ সেই আলোর রেখা।
     
  8. Tazul Islam
    Offline

    Tazul Islam Kazirhut Lover Member

    Joined:
    Apr 20, 2016
    Messages:
    19,473
    Likes Received:
    538
    Gender:
    Male
    Location:
    Dhaka
    Reputation:
    142
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    শুভাশিস, তোমাকে খুঁজছি আমি
    - মহাদেব সাহা---কোথায় যাই, কার কাছে যাই


    শুভাশিস, তোমাকে খুঁজছি আমি
    হরিচরনের যতার্থ বানানে লিখে নাম,
    উচ্চারণ অভিধান ঘেঁটে সঠিক মাত্রায় ডেকে ডেকে
    তোমাকে খুঁজছি আমি শুভাশিস, এই দুঃসময়ে
    যখন সকল মানবিক স্রোতদারা মুস্ক হয়ে যায়,
    নেমে আসে দিবসে-নিশীথে দীর্ঘ জিরাফের গ্রীবা।
    তোমাকে খুঁজছি আমি যেন সেই শৈশবের নদী
    আমার মায়ের দুটি স্নেহময় হাত,
    যেন একটি প্রাচীন বৃক্ষ, তুলসীমঞ্চ, সন্ধ্যাদীপ
    সুফী দরবেমের ধ্যানী দৃষ্টি;
    তোমাকে খুঁজছি আমি শুখাশিস সমস্ত জীবন।
    শুভাশিস, তোমাকে খুঁজছি আমি সকালের চোখে
    নক্ষত্রের নিপুণ মুদ্রায়, মানুষের গাড় কণ্ঠস্বরে,
    শ্রাবণের অঝোর বর্ষণে আর চৈত্রের উদাস জ্যোৎ্লায়
    তোমাকে খুঁজছি আমি কতো লক্ষ সহস্র বছর।
    তোমাকে খুঁজছি আমি শুভাশিস, সবখানে
    লোকালয়ে, বৃক্ষপত্রে-
    শহরের কংক্রিটের মাঠে
    এই দুঃসময়ে কোথায় তোমার দেখা পাই;
    শুভাশিস, তুমি নিরুদ্দেশ সেই কবে থেকে।
     

Pls Share This Page:

Users Viewing Thread (Users: 0, Guests: 0)