1. Dear Guest আপনার জন্য kazirhut.com এর বিশেষ উপহার :

    যেকোন সফটওয়্যারের ফুল ভার্সনের জন্য Software Request Center এ রিকোয়েস্ট করুন।

    Discover Your Ebook From Our Huge Collection E-Books

গৃহ ও গৃহ ব্যবস্থাপনা

Discussion in 'Agriculture' started by nobish, Dec 9, 2016. Replies: 6 | Views: 243

  1. nobish
    Online

    nobish Welknown Member Staff Member Moderator

    Joined:
    Apr 28, 2013
    Messages:
    5,823
    Likes Received:
    1,803
    Gender:
    Male
    Location:
    Jessore
    Reputation:
    558
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    [​IMG]
    গৃহ মানুষের জীবনের প্রথম পরিবেশ।একটি শিশুকে সুস্থ হিসেবে গড়ে তুলতে এই পরিবেশকে গৃহ ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে উন্নত করা যায়। এখানে আমরা নানাবিধ কাজ করি। কাজের স্থানগুলো সনাক্ত করে, কোথায় কী কাজ করব তা জানা থাকলে কাজ সহজ হয়। গৃহের ভিতর ও বাইরের পরিবেশ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা আমাদের সকলের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব। গৃহকে পরিষ্কার ও পরিপাটি রাখতে হলে জিনিসপত্র যথাস্থানে সংরক্ষণ করতে হয়। সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে পরিকল্পনার মাধ্যমে কাজ করলে, প্রতিটি কাজেই সফলতা আসে।
     
  2. nobish
    Online

    nobish Welknown Member Staff Member Moderator

    Joined:
    Apr 28, 2013
    Messages:
    5,823
    Likes Received:
    1,803
    Gender:
    Male
    Location:
    Jessore
    Reputation:
    558
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    গৃহ ও গৃহ পরিবেশের ধারণাঃ
    আদিম যুগের মানুষ আমাদের মতো গৃহে বাস করত না। হিংস্র বন্য প্রাণীর আক্রমণ এবং ঝড়, বৃষ্টি, শীত-তাপ ইত্যাদির কবল থেকে নিজেদের রক্ষা করার জন্য তারা শুধু একটা আশ্রয়স্থল খুঁজে নিত। এই আশ্রয়স্থল গুলো ছিল বন জঙ্গল, বড় গাছ, পাহাড়ের গুহা ইত্যাদি।

    পরবর্তীতে মানুষ ধীরে ধীরে যখন চাষাবাদ শিখল, তখন তারা একত্রিত হয়ে পরিবার গঠন করলো। পরিবারের সদস্যদের বসবাসের জন্য তারা গৃহের প্রয়োজন অনুভব করলো এবং গৃহ নির্মাণ করতে শিখলো। এ ভাবে গৃহের সূচনা হলো।

    আমরা বলতে পারি, গৃহ এমন একটা স্থান যেখানে আমরা পরিবারবদ্ধ হয়ে বাস করি। গৃহ আমাদের মৌলিক চাহিদাগুলোর মধ্যে অন্যতম। আমরা আমাদের বিভিন্ন রকম চাহিদা পূরণের জন্য সারাদিন নানারকম কাজে ব্যস্ত থাকি। কাজের শেষে বিশ্রাম ও আরামের জন্য আমরা গৃহে ফিরে আসি। ফলে আমাদের সব ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। গৃহে আমাদের খাদ্য, বস্ত্র ও পোশাক পরিচ্ছদ, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, নিরাপত্তা, বিনোদন, বিভিন্ন শখ ইত্যাদি চাহিদা পূরণ হয়। এখানে সবার প্রতি সবার শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও সহযোগিতা থাকার ফলে পারিবারিক বন্ধনটাও মজবুত হয়।
     
  3. nobish
    Online

    nobish Welknown Member Staff Member Moderator

    Joined:
    Apr 28, 2013
    Messages:
    5,823
    Likes Received:
    1,803
    Gender:
    Male
    Location:
    Jessore
    Reputation:
    558
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    গৃহ পরিবেশঃ
    প্রতিটি মানব শিশুর জীবনের প্রথম পরিবেশ হলো গৃহ। আশেপাশের সবকিছু নিয়ে গৃহ পরিবেশের সৃষ্টি হয়। গৃহের ভিতরে ও বাইরের সব অংশ নিয়েই গড়ে ওঠে গৃহ পরিবেশ। পরিবারের সদস্যদের সুখ, শান্তি এবং শারীরিক ও মানসিক সুস্থতা নির্ভর করে গৃহ পরিবেশের উপর।
    গৃহ পরিবেশের মধ্যে থাকে-
    ১. বিভিন্ন ঘর বা কক্ষ
    ২. ছাদ/চালা
    ৩. বারান্দা
    ৪. আঙিনা ইত্যাদি।
    পরিবারের সদস্যদের সবরকম বিকাশের জন্য সুন্দর একটি গৃহ পরিবেশ দরকার। আমরা সবাই শিশুকাল থেকে বৃদ্ধ বয়স পর্যন্ত এই পরিবেশেই বসবাস করি, তাই ব্যক্তি জীবনে গৃহ পরিবেশের প্রভাব অনেক। এখান থেকেই আমাদের বিভিন্ন অভ্যাস, রুচিবোধ, দায়িত্ব ও কর্তব্যবোধ গড়ে ওঠে। গৃহ পরিবেশের মধ্যে অবস্থান করে আমরা বিভিন্নরকম কাজে অংশগ্রহণ করে থাকি। ফলে আমাদের দায়িত্ব ও কর্তব্যবোধ গড়ে ওঠে। আর তাই গৃহ পরিবেশটাও হওয়া দরকার পরিচ্ছন্ন, স্বাস্থ্য সম্মত এবং সুশৃঙ্খল। তাহলেই গৃহের মানুষগুলো সুস্থ ও সুশৃঙ্খল হয়ে গড়ে উঠবে। যা আদর্শ জাতি গঠনে সহায়ক হবে। গৃহের সব পরিবেশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ও দূষণ মুক্ত রাখা দরকার। সেজন্য গৃহে যে সব ব্যবস্থা থাকতে হবে-
    ১. সূর্যের আলো প্রবেশ ও বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা থাকা।
    ২. বিশুদ্ধ খাবার পানির সরবরাহ নিশ্চিত করা।
    ৩. গৃহের ভিতরে ও বাইরে নিয়মিত পরিষ্কার রাখা।
    ৪. ময়লা পানি ও মলমূত্র নিষ্কাশনের ভালো ব্যবস্থা রাখা।
    ৫. গৃহে সৃষ্ট ধোঁয়া নির্গমনের ব্যবস্থা থাকা।
    ৬ গৃহের আঙিনায় জায়গা থাকলে সেখানে ছোট বড় গাছ এবং প্রয়োজনে টবে বিভিন্ন গাছ লাগানো।
    শহর ও গ্রামে গৃহের ধরণ আলাদা হয়। শহরে পাকা বাড়ি তৈরি হয়- ইট, বালু, সিমেন্ট, রড ইত্যাদি দিয়ে। আর গ্রামে সাধারণত কাঁচা বাড়ি, যে গুলো টিন, কাঠ, বাঁশ, মাটি ইত্যাদি দিয়ে তৈরি।
    [​IMG]
     
  4. nobish
    Online

    nobish Welknown Member Staff Member Moderator

    Joined:
    Apr 28, 2013
    Messages:
    5,823
    Likes Received:
    1,803
    Gender:
    Male
    Location:
    Jessore
    Reputation:
    558
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    গৃহের অভ্যন্তরীণ স্থানের বিন্যাস
    আমরা ইতোমধ্যে জেনেছি যে, আমাদের গৃহে বিভিন্নরকম স্থান আছে। গৃহে প্রবেশ করার দরজা থেকে শুরু করে বারান্দা, বিভিন্ন ঘর, বাগান, গাড়ি বারান্দা ইত্যাদি সবই গৃহের অন্তর্ভূক্ত বিভিন্ন স্থান। গৃহে বিভিন্ন ধরনের কাজ করা হয়। এক এক ধরনের কাজ এক এক জায়গায় করা হয়ে থাকে। গৃহের বিভিন্ন কক্ষ বা স্থানের বিন্যাস এই কাজের ওপর ভিত্তি করেই গড়ে ওঠে। যেমন- রান্না করা, খাওয়া দাওয়া, গোসলকরা, পরিষ্কার করা, পড়ালেখা করা, সাজসজ্জা করা, বিশ্রাম ও ঘুমানো, অতিথি আপ্যায়ন করা ইত্যাদি। এই সব কাজগুলো প্রত্যেকটাই আলাদা ধরনের। ফলে এই কাজের স্থানগুলোও বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে।

    গৃহের কাজের উপর ভিত্তি করে গৃহের অভ্যন্তরীণ স্থানকে মোটামুটি তিন ভাগে ভাগ করা হয়। যথা-
    ১। আনুষ্ঠানিক স্থান
    ২। অনানুষ্ঠানিক স্থান
    ৩। কাজের স্থান
     
  5. nobish
    Online

    nobish Welknown Member Staff Member Moderator

    Joined:
    Apr 28, 2013
    Messages:
    5,823
    Likes Received:
    1,803
    Gender:
    Male
    Location:
    Jessore
    Reputation:
    558
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    আনুষ্ঠানিক স্থানঃ
    আনুষ্ঠানিক স্থান বলতে বোঝায় যেখানে আনুষ্ঠানিক কাজগুলো সম্পন্ন করা হয়। এখানে আমরা বিভিন্ন আনুষ্ঠানিকতা রক্ষা করি। আমাদের গৃহে কোনো অতিথি, বন্ধু বান্ধব এলে আমরা আনুষ্ঠানিক স্থানগুলোতে তাদের অভ্যর্থনা জানাই, আপ্যায়ন করি। কখনও কখনও তাদের থাকার ব্যবস্থা করে থাকি।
    এই স্থানগুলোর মধ্যে আছে-
    * বসার ঘর বা ড্রইং রুম
    * খাওয়ার ঘর
    * অতিথি ঘর
    * গাড়ি বারান্দা
    * সিঁড়ি ইত্যাদি।
    [​IMG]
     
  6. nobish
    Online

    nobish Welknown Member Staff Member Moderator

    Joined:
    Apr 28, 2013
    Messages:
    5,823
    Likes Received:
    1,803
    Gender:
    Male
    Location:
    Jessore
    Reputation:
    558
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    অনানুষ্ঠানিক স্থানঃ
    অনানুষ্ঠানিক স্থান বলতে বোঝায় সাধারণত আমরা যে স্থানগুলোতে ব্যক্তিগত বা একান্ত নিজের কাজগুলো করে থাকি। এখানে আমরা বিশ্রাম নেই, ঘুমাই, পড়াশোনা করি, সাজসজ্জা করি ইত্যাদি। এই স্থানগুলোতে শুধুমাত্র পরিবারের সদস্যরাই তাদের বিভিন্ন কাজ সম্পন্ন করে থাকে। তাই এখানে কিছুটা গোপনীয়তা রক্ষা করা হয়। অনানুষ্ঠানিক স্থানগুলোর মধ্যে পড়ে-
    শোবার ঘর,
    পড়ার ঘর,
    সাজসজ্জার ঘর ইত্যাদি।
    [​IMG]
     
  7. nobish
    Online

    nobish Welknown Member Staff Member Moderator

    Joined:
    Apr 28, 2013
    Messages:
    5,823
    Likes Received:
    1,803
    Gender:
    Male
    Location:
    Jessore
    Reputation:
    558
    Country:
    Bangladesh Bangladesh
    কাজের স্থানঃ
    এই স্থানে প্রতিদিন গৃহের বিভিন্ন ধরণের কাজগুলো করা হয়ে থাকে। যেমন- রান্নাকরা, বিভিন্নরকম পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কাজ, বিভিন্ন দ্রব্য যথাযথ ভাবে সংরক্ষণ করা ইত্যাদি।
    রান্নার কাজের মধ্যে খাবার রান্নার জন্য প্রস্তুতি অর্থাৎ কোটা, বাছা, ধোওয়া, মশলা বাটা ইত্যাদি থেকে শুরু করে রান্না করা সবই থাকে। তাছাড়া খাবার পরিবেশন করার জন্য বাসনপত্র, গ্লাস, জগ, চামচ, ছুরি, কাঁটা চামচ, টেবিল ম্যাট ইত্যাদি যথাযথ ভাবে রাখার কাজগুলো হয়ে থাকে।
    পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার মধ্যে পড়ে কাপড়চোপড় ধোওয়া, ইস্ত্রি করা, ঘর মোছা বা লেপা, সিলিং, দরজা-জানালার গ্রীল ও কাঁচ, বাথরুম, টয়লেট, ঘরের আঙিনা ইত্যাদি পরিষ্কার করা। কাজের স্থানগুলো হলো -
    * রান্না ঘর
    * বাথরুম ও টয়লেট
    * ভাঁড়ার ঘর বা চাল, ডাল শস্য ইত্যাদি সংরক্ষণ স্থান
    * কাপড়, তৈজসপাতি বা বাসন পেয়ালা ধোয়ার স্থান
    * কোটা-বাছার স্থান
    [​IMG]
    তথ্যসূত্রঃ গার্হস্থ্য বিজ্ঞান, পাঠ্য পুস্তক, ৬ষ্ঠ শ্রেণী।
     

Pls Share This Page:

Users Viewing Thread (Users: 0, Guests: 0)

Users found this page by searching for:

  1. গৃহ ব্যবস্থাপনা